মঙ্গলবার,২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং,১২ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ,



মাদ্রিদে ফুলতলী ট্রাস্টের কুরআন শিক্ষার পুরস্কার বিতরণ


প্রবাস সংবাদ :
২৪.০৯.২০১৯

কবির আল মাহমুদ, স্পেন :

দারুল কেরাত মজিদিয়া ফুলতলী ট্রাস্ট, শাহজালাল লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদ মাদ্রিদ,স্পেন শাখার বিশুদ্ধ কুরআন শিক্ষা প্রশিক্ষণের ফলাফল ও পুরস্কার বিতরণী অত্যান্ত সুন্দর ও সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।
গত ২২ সেপ্টেম্বর দুপর ১২ টায় স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের শাহজালাল লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদে এ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শাহজালাল লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমান।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান ও মাওলানা আতিকুর রহমান এর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দেন মসজিদ প্রতিষ্ঠাতা কমিটির সদস্য যুক্তরাজ্য প্রবাসী কমিউনিটি নেতা আব্দুল কায়ূম পংকী । তিনি তার বক্তব্যে দারুল কেরাত মজিদিয়া ফুলতলী ট্রাস্ট ও ফুলতলী ইসলামিক সেন্টারের ভূয়শী প্রশংসা করে শিক্ষার্থীদের কুরআনের শিক্ষায় আত্মনিয়োগ করার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান।

এসময় অন্যানোর মধ্যে বক্তব্য দেন দেশ কণ্ঠ পত্রিকার সম্পাদক সাংবাদিক এ কে এম জহিরুল ইসলাম,মাওলানা কাজী মুজিবুর রহমান,মাওলানা হাফিজ আবুল কাশেম,কমিউনিটি নেতা আব্দুল কায়ূম মাসুক, গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশনের আহবায়ক ফয়জুর রহমান (বড় ভাই ), সোহেল আহমদ সামসু,আব্দুল হামিদ সঞ্জু, হাজী আব্দুল মতিন, নাজু ইসলাম, আহমদ আসাদুর রহমান সাদ, হাজী আব্দুল জব্বার, হাজী হাবীব আলী,হাফিজ আবু তাহের মিসবাহ, এম আই আমীন, হাফিজুর রহমান,কাজী নজরুল ইসলাম,জাহিদুল ইসলামসহ কমিউনিটির কোরআন প্রেমিক ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিবর্গ।

সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা খলিলুর রহমান প্রবাসে ইসলামিক শিক্ষা কে আরো গতিশীল ও ইসলাম শিক্ষার মান বৃদ্ধির জন্য সকল প্রবাসীদেরকে আরো এগিয়ে আসার আহবান। বিশেষ করে কুরআন মুখস্থ করণের জন্য বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন। তিনি পবিত্র হাদিসের রেফারেন্স দিয়ে বলেন,”একজন কুরআনের হাফিজ কিয়ামতের দিন তাঁর পরিবারের ১০ জন মানুষকে জান্নাতে নিয়ে যাবার সুপারিশ করতে পারবে যাদের উপর জাহান্নাম ওয়াজিব হয়ে গেছে।” কাজেই সন্তানদেরকে ইসলামী শিক্ষার পাশাপাশি পবিত্র কুরআনের হাফিজ বানানোর জন্য শিক্ষার্থীদের মা-বাবা অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ জানান।

পরিশেষে মাওলানা কাজী মুজিবুর রহমান ও মাওলানা আতিকুর রহমানের মনোমুগ্ধকর কন্ঠে মিলাদ ও ক্বিয়াম পরিচালিত হয় এবং শাহজালাল লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মাওলানা খলিলুর রহমান এর সমাপনী বক্তব্য ও মুসলিম মিল্লাতের মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়ার মাধ্যমে সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি